ঢাকা উত্তরের মেয়র উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা


ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি নতুন মেয়র নির্বাচনে ভোট দেবেন সেখানকার ভোটাররা। এই উপনির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী হতে আবেদন জমা দেওয়া যাবে আগামী ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত। তা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ জানুয়ারি। আবেদনকারী প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাই হবে ২১ ও ২২ জানুয়ারি। এর মধ্য দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্ত হবে, তাদের মধ্য থেকে মেয়র নির্বাচনের জন্য ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোট দেবেন ভোটাররা। আজ মঙ্গলবার ঢাকার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা মেয়র পদে উপনির্বাচনের পাশাপাশি উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩৬টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ১২টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচনের তফসিলও ঘোষণা করেন। তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমা, বাছাই ও ভোটের দিন একই রাখা হয়েছে। আইন সংশোধনের পর এবার প্রার্থীরা লড়বেন দলীয় মনোনয়নে, দলীয় প্রতীকে। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সাবেক মেয়র আনিসুল হকের মতো আরেক ব্যবসায়ী নেতা আতিকুল ইসলামকে প্রার্থী করার করার ইঙ্গিত মিলেছে। বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট একক প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে; প্রার্থী মনোনয়নের ভার দেওয়া হয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে। ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল ঢাকা উত্তরে ভোট হয়েছিল। প্রায় দুই বছর ধরে ওই দায়িত্ব পালনের মধ্যেই গত বছরের জুলাইয়ে যুক্তরাজ্যে গিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন সেরিব্রাল ভাস্কুলাইটিসে আক্রান্ত আনিসুল। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩০ নভেম্বর তার মৃত্যু হয়। স্থানীয় সরকার বিভাগ ১ ডিসেম্বর থেকে মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করায় আইন অনুযায়ী ৯০ দিন, ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ উপনির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা তৈরি হয় ইসির। ঢাকা উত্তরের নতুন মেয়র এবং ৩৬টি নতুন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের মেয়াদ হবে সিটি করপোরেশনের মেয়াদ থাকা পর্যন্ত। ঢাকা উত্তরের ক্ষেত্রে এই মেয়াদ হবে ২০২০ সালের ১৩ মে পর্যন্ত; আর দক্ষিণে ওই বছরের ১৬ মে পর্যন্ত। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পুরাতন ৩৬টির সঙ্গে নতুন ১৮টি ওয়ার্ড যোগ হওয়ায় মোট ওয়ার্ডের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৪টি। আর দক্ষিণ সিটির ওয়ার্ড সংখ্যা ৫৭টি থেকে বেড়ে হয়েছে ৭৫টি।